Sat. Feb 4th, 2023

    …………………………

    কবুতর পালনে শিক্ষক আলতাফুরের সাফল্য এসেছে। ঠাকুরগাঁওয়ের শিক্ষক আলতাফুর রহমান তার শিক্ষকতার পাশাপাশি কবুতর লালন পালন করে অভাবনীয় সাফল্য পেয়েছেন। সৃষ্টি করেছেন বাড়তি আয়ের পথ। তিনি তার বাড়ির ছাদে খোলামেলা পরিবেশে বিভিন্ন জাতের কবুতর পালনের মাধ্যমেই এই সাফল্য পেয়েছেন। এখন তিনি বাণিজ্যিকভাবেই পালন করছেন কবুতর।

    জানা যায়, দেশে করোনা পরিস্থিতিতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় অবসর সময়টাকে কাজে লাগাতে শিক্ষক আলতাফুর কবুতর পালন করার সিদ্ধান্ত নেন। সখের বসে ২০২০ খ্রিষ্টাব্দের মার্চ মাসে ৩০ থেকে ৩৫টি কবুতর কিনে বাড়ির ছাদে পালন শুরু করেন। সে থেকেই তার কবুতরগুলো প্রতিমাসে ডিম থেকে বাচ্চা দিচ্ছে। এতে কয়েক মাসেই শতাধিক কবুতর যোগ হয়।

    …………………………

    শুরুতে পরিবারের পক্ষ থেকে কবুতর পালনে অনিহা প্রকাশ করলেও কবুতরের সংখ্যা বাড়ায় আগ্রহ বাড়ে। তার কবুতরের সংখ্যা দাড়িয়েছে সাত শতাধিক। শিক্ষক আলতাফুর রহমান বলেন, কবুতর পালনে যেমন মানসিক প্রাশান্তি রয়েছে। তেমনি অল্প সময়ে অনেক টাকা আয় করা সম্ভব। তবে, সময়মত প্রাণী সম্পদ অধিদপ্তরের পরামর্শ নিয়ে কবুতর পালন করলে ঝুঁকি নেই।

    সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, কবুতরগুলো আশপাশের বাড়ির ছাদ আর খোলা আকাশে উড়ে বেড়াচ্ছে। সময়মতো খাবার দিলেই ছুটে আসে একই ছাদে। ভয়ভীতি ছাড়াই উড়ে গিয়ে কখনো শরীরে, কখনো হাত পেতে দেওয়া খাবারে খাচ্ছে। কবুতরের বাকবাকুম শব্দ আর খুনসুটি দেখতে আশপাশের অনেকে হাজির হন শিক্ষকের ছাদে। শিক্ষক আলতাফুর এখন প্রতি জোড়া কবুতর এখন বিক্রি করছেন ৩০০-৬০০ টাকায়।

    …………………………

    ঠাকুরগাঁও সদরের প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা মামুন অর রশিদ বলেন, শিক্ষকতার পাশাপাশি কবুতর পালন করে আর্থিকভাবে লাভবান হচ্ছেন তিনি। মাংসের চাহিদা ও পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় অবদান রাখছেন আলতাফুর রহমান। আমরা তাকে সব সময় পরামর্শ দিয়ে আসছি।
    তথ্যসূত্রঃ আধুনিক কৃষি খামার