Wed. Feb 8th, 2023

    …………………………

    শিক্ষকদের জীবনমান উন্নত করতে তাদের বেতনভাতা বাড়াতে হবে বলে জানিয়েছেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ অধ্যাপক সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম। তিনি বলেন গত ৫০ বছরে শিক্ষার বিস্তার বেড়েছে, তবে শিক্ষার মানের আশানুরূপ উন্নয়ন হয়নি।তাই শিক্ষার মানের দিকে আমাদের আরও নজর দিতে হবে।
    ………
    শিক্ষার বাজেটের দিকে ভবিষ্যতে বিশেষ গুরুত্ব দিতে হবে। ১৯৭০ সালের নির্বাচনের আগে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শিক্ষায় মোট জিডিপির ৪ শতাংশ অর্থ ব্যবহারের কথা বলেছিলেন।

    …………………………

    স্বাধীনতার পরে ড. কুদরাত-এ-খুদা প্রণীত শিক্ষানীতিতে দেশের মোট জিডিপির ৫ থেকে ৭ শতাংশ অর্থ ব্যবহারের কথা বলা হয়েছিল।কিন্তু স্বাধীনতার ৫০ বছর পরে এসেও এখনও আমরা মাত্র ২ শতাংশ অর্থ শিক্ষাখাতে বরাদ্দ দিচ্ছি।

    এই বরাদ্দ দিয়ে শিক্ষাকে আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত করা তো দূরের কথা, দেশীয় মানটাও আমরা ধরে রাখতে পারবো না।

    তিনি আরও বলেন, শিক্ষকদের জীবনমান উন্নত করতে তাদের বেতনভাতা বাড়াতে হবে। প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোকে সেন্টার অব এক্সিলেন্সে পরিণত করতে হবে। শিক্ষা খাতে এগুলোই আমার প্রত্যাশা।

    …………………………

    তিনি বলেন, শিক্ষার মানের সাথে শিখন পদ্ধতি, পাঠ্যক্রম, পাঠ্যবই, শিক্ষক সমভাবে গুরুত্বপূর্ণ। শিক্ষার্থীদের মননশীলতা জাগিয়ে তুলতে না পারলে ফলসর্বস্ব শিক্ষাব্যবস্থা দিয়ে মানের উন্নয়ন ঘটবে না।

    ৪র্থ শিল্পবিপ্লবের দিকে আমরা পা বাড়াচ্ছি। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর ক্ষণে দাঁড়িয়ে শিক্ষা ব্যবস্থার মূল্যায়ন প্রসঙ্গে আমি বলবো, যা হয়েছে তা ভালোই হয়েছে।