Wed. Dec 6th, 2023

    ©মোঃ রাসেল রানা 

    পুলিশ ক্যাডার, ৩৮ তম বিসিএস।

    ৩৮ তম বিসিএস পরীক্ষায় পুলিশ ক্যাডারে সুপারিশপ্রাপ্ত হয়েছেন হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের  (হাবিপ্রবির) ১২ ব্যাচের  কৃষি অনুষদের শিক্ষার্থী মোঃ রাসেল রানা।

    প্রথম বিসিএসে পছন্দের ক্যাডার পেতে তিনি নিজস্ব কিছু চিন্তা অক্ষরে অক্ষরে মেনে চলতেন। সেগুলোই আপনাদের সাথে শেয়ার করেছেনঃ

    ১। চাকরিপ্রার্থীরা হবে কুচে মুরগির মতো। ঘরে ঢুকে থাকবে, গায়ে দূর্গন্ধ হবে, আচরণ চেঞ্জ হবে। কাছের মানুষেরা দূরে সরে যাবে। কিন্তু দিনশেষে সফল হয়ে সবার চোখের মণি হবে।

     

    ২। পড়ার টেবিল-চেয়ার, বই খাতা সহ পুরো পরিবেশটা এমনভাবে সাজাবেন যেন বাহিরের যেকোনো পরিবেশ থেকে সেটা সুন্দর, মনোরম আর আকর্ষণীয় হয়।

    ৩। যে পরিচয়টা অর্জনে পড়াশোনা করছেন (ASP/magistrate/banker/Teacher…) পড়ার টেবিলের সামনে তা বড় করে লিখে রাখুন যেন পড়তে বসলেই সেটা চোখে পড়ে। এটা আপনাকে পড়াশোনায় উৎসাহিত করবে।

    ৪। এতোগুলো বছরেও যে টপিক থেকে প্রশ্ন হয়নি, খুব অঘটন না ঘটলে ভবিষ্যতেও সেখান থেকে প্রশ্ন হবে না (very important recent issue ছাড়া)। অন্যদিকে বিগত প্রশ্ন ব্যাখ্যা থেকে যেকোনো পরীক্ষায় প্রশ্ন আসবে। তাই কী পড়বেন আর কী পড়বেন না তা বুঝার চেষ্টা করুন।

    ৫। গুরুত্বপূর্ণ প্রত্যেকটা টপিক এমনভাবে পড়বেন যেন মনে হয় আপনি নিশ্চিত জানেন যে সেই টপিক থেকে কমপক্ষে একটা প্রশ্ন আসবেই।

     

    ৬। বিসিএস সিলেবাসের প্রায় ৫০ টা টপিক থেকে প্রতিবছর কমপক্ষে ৭০ নম্বর আসে। আজ থেকে আগামী এক মাসে এই টপিকগুলো পড়ে ফেলুন। (যেমনঃ চর্যাপদ, রবীন্দ্রনাথ, নজরুল, মাইকেল, পত্রিকা, সমাস, সন্ধি, শব্দ, অর্থ ও পরিভাষা, parts of speech, Gerund & participle, Synonym antonym, Spelling, One word substitution, Analogy, Literary period, Literary Terms, Shakespeare, Marlowe, Wordsworth, সংবিধান,

    কৃষি, জনগোষ্ঠী, মুক্তিযুদ্ধ, আন্তর্জাতিক দিবস, ১ম ও ২য় বিশ্বযুদ্ধ, জাতিপুঞ্জ ও জাতিসংঘ, সংগঠন সদর দপ্তর, প্রতিষ্ঠা সাল, যুক্তরাষ্ট্র, পরিবেশ, শতকরা, লাভ ক্ষতি, বীজগাণিতিক সূত্রাবলী, উৎপাদক, সূচক ও লগ, ধারা, বিন্যাস সমাবেশ……..ইত্যাদি)। প্রয়োজনে নোট করে পড়ুন।

    ৭। প্রথম পড়ার সময় মনে রাখার চেষ্টা না করে ভালোভাবে বুঝার চেষ্টা করুন। তারপর আবার পড়ে মনে রাখার চেষ্টা করুন। ভুলে সবাই যাই। যারা বারবার পড়ে মনে রাখে তারাই সফল হয়।

     

    ৮। প্রচুর মডেল টেস্ট দিন। পরীক্ষায় পাশ করে পরের ক্লাসে উঠার পর যেমন আগের ক্লাসের সব পড়া ইজি মনে হতে থাকে ঠিক তেমনি বারবার পরীক্ষা দিলে চাকরির পড়াশোনাটাও সহজ মনে হবে।

    ৯। প্রস্তুতি পুরো সময়ে প্রচুর দান করুন, ইবাদত করুন। যে বিষয়গুলো আপনাকে কনফিডেন্ট করে, খুশি করে সেগুলো করুন। বাকীগুলো এড়িয়ে চলুন।

    সফল মানুষেরা বিনয়ী হয়। তাদের কাছে হেল্প টিপস চাইলে তারা খুশি হোন।

    চাকরিযোদ্ধা ভাই বোনদের জন্য অনেক দোয়া ও শুভকামনা রইল।

     

    কথাগুলো কারও উপকারে আসলে ধন্য হব। আমার জন্য দোয়া করবেন।

    Worthy Talk BD || worthytalkbd