Wed. Feb 1st, 2023

    যারা বিসিএস প্রশাসন ক্যাডারে আসতে চান তাদের জন্য কিছু উপদেশ!  

    @Khan Mohammad Ishmam 

    Assistant Commissioner and Executive Magistrate.

     

    ১) প্রথম কথা,  প্রশাসন ক্যাডারের চাকরীটির নেচার এমন যে, কারো পক্ষেই জনপ্রিয় হওয়া সম্ভব নয়। আমাদের কাজ হলো নিয়ন্ত্রন, তদারকি, বাস্তবায়ন। আর সেইসাথে উচ্চপর্যায়ে গেলে পলিসি এডভাইস দেওয়া। এরকম অনেক ক্ষেত্রেই আপনাকে অনেকের বিরাগভাজন হতে হবে। সমালোচনাও সহ্য করতে হবে। এতে মন খারাপের কিছুই নেই।

    ২) কেউ যদি Batman এর মুভি দেখে থাকে তাহলে বোঝা সম্ভব হবে এই কথাটা। এই চাকরীতে আপনি একাই। তোমার অনেক কাছের বন্ধু তোমার বিরুদ্ধে কথা বলবে অথবা তোমার পেশাকে প্রায়ই তুচ্ছ-তাচ্ছিল্য করবে। কিন্তু মনে রাখতে হবে, তুমি যেখানেই যাবে সেখানেই তোমাকে  একা কাজ করতে হবে। এতে ভয় পেলে এই চাকরী তোমার জন্য নয়। মাথা ঠাণ্ডা রেখে কাজ করাই তোমার দায়িত্ব। একজন প্রশাসকের মূলগুণ এটাই।

     

    ৩) এই চাকরীতে On the spot অনেক সিদ্ধান্ত নিতে হয়, এতে ভুল হতে পারে কিংবা তীব্র সমালোচনাও হতে পারে। তাই বলে সিদ্ধান্ত নিতে পিছু হটা হওয়া যাবেনা। মনে রাখতে হবে, ওহী নাজিল করে এ সার্ভিসে কাজ করানো যাবেনা। জনগণের সাথে মিশে, তাদের সমস্যা বুঝে তোমাকে কাজ করতে হবে।

    ৪) প্রশাসন ক্যাডারের চাকরিতে জনগণের সম্পৃক্ততা বেশি। এটি বদ্ধ দেয়ালে বসে 9 to 5 Job আর সন্ধ্যায় বাড়ি গিয়ে Social মিডিয়ায় পিণ্ডি চটকানোর মত কোন চাকরী নয়। তোমাকে 24/7 কাজ করতে হবে। এই চাকরীতে তথাকথিত Glummer যেমন আছে, ঠিক তেমনি  বিড়ম্বনাও আছে অনেক। তোমার পরিবারের সকলেও Magnifying কাঁচের অধীনে থাকবে। তাই তাদেরকেও সেভাবে প্রশিক্ষণ দাও।

     

    ৫) দুর্যোগ অথবা সরকারী ছুটির দিনও তোমার ডিউটি থাকবে, এই মানসিকতা না থাকলে প্রশাসন ক্যাডারে আসার দরকার নেই। কোর্ট-কাচারি বা অন্য অনেক অফিসে চাকরি করে ছুটি নিতে পারলেও অথবা অবকাশ পেলেও তোমার ছুটি হবেনা।

    ৬) এই চাকরীর Glummer এর কথা খালি শুনবে কিন্তু এর বিভিন্ন সীমাবদ্ধতা এর কথাও শোনা দরকার। আমাদের পারিবারিক জীবন বলতে কিছুই নেই। রাষ্টের সেবায় সবসময় নিজেকে প্রস্তুত রাখা লাগবে। এক মুহূর্তের জন্যএ বলা যাবে না আমি অপারগ। অনেক পারিবারিক গুরুত্বপূর্ণ কাজেও ছুটি পাওয়া যাবে না। এগুলো ভেবেই এই চাকরীতে আসা দরকার।

     

    ৭) এই চাকরীতে আসলে সবসময় পড়াশোনার ভেতরেই হবে। নিজের উন্নয়ন করা ছাড়া নেতৃত্ব দেওয়া খুব কঠিন। আর বিসিএস এর মতো কঠিন পরীক্ষা পার করে আসার পরও তোমাকে সবসময় পড়তে হবে। প্রশাসন ক্যাডারে চাকরী পাওয়া যেমন কঠিন, ঠিক তেমনি চাকরী পাওয়ার পর নিজের মান বজায় রাখাও কঠিন। তাই নিজের মান বজায় রাখতেও তোমাকে নিয়মিত পড়াশোনা করতে হবে। এর ভিন্ন কিছু মনে করলে এই চাকরিতে না আসাই ভাল।

    ৮) এই চাকরীতে ক্ষমতা খুবই সীমিত। এরচেয়ে অনেক শক্তিশালী বিভাগ রয়েছে যেখানে তুমি তোমার ক্ষমতা দেখাতে পারবে। সেবার মানসিকতা না থাকলে এই চাকরীতে আসার দরকার নাই ।

     

    ৯) প্রশাসকরা নেতৃত্ব দেয়। একজন নেতার যেমন আচরণ করা দরকার, তোমারো ঠিক তেমনি আচরণ করা দরকার। মোটকথা এই চাকরী ও মানুষের প্রতি ভালবাসা থাকতে হবে। তাহলেই তুমি আদর্শ প্রশাসক হতে পারবে।

    উপরের কথাগুলি মাথায় রেখেই তোমার এই চাকরীতে আসা উচিত, আর তা না হলে মারাত্মক ভাবে হতাশ হতে হবে । সরকার তোমাকে কেন্দ্রীয় সরকারের প্রতিনিধি হিসেবে বিভিন্ন জেলা বা উপজেলায় পদায়ন করবে অথবা সরকারের প্রতিনিধি হিসেবে তুমি বিদেশীদের সামনে বসবে।

     

    নিজ দেশের বা নিজ পেশার অথবা  নিজের সম্মান তোমার হাতেই। সুতরাং নিজ মেধা ও মননের উপর যদি বিশ্বাস থাকে অথবা যদি  তুমি মনে কর “Sincerity and Honesty of Purpose” নিয়ে কাজ করতে পারবে তাহলেই প্রশাসন ক্যাডার তোমার জন্য।