Thu. Jan 26th, 2023

    …………………………

    ### বিসিএস ট্যাক্স (কর)  ক্যাডারে চাকরি হলে আপনাকে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডে                  সহকারী কর কমিশনার হিসেবে যোগদান করবেন। আয়কর বিভাগ সরকারের একমাত্র বিভাগ যা দেশের জন্য প্রত্যক্ষ রাজস্ব আহরণ করে। আয়কর রিটার্ন দাখিলের সময় কাজের চাপ বাড়ে। তাছাড়া অন্যসময় মোটামুটি কাজ থাকে।      সরকারী/বেসরকারী কোন আয়ের বিষয়ে CIC গোয়েন্দা কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকেন। উক্ত কার্যক্রমের মাধ্যমে আহরিত রাজস্বের জন্য                      ইনসেন্টিভ পেয়ে থাকেন। গাড়ী সুবিধা পাবেন। Promotion দ্রুত।

    @@@সুবিধা:   ১.একজন ট্যাক্স ক্যাডার কর্মকর্তা ‘ Assistant Commissioner of Taxes ‘ পদে যোগদানের মাধ্যমে তার কর্মজীবন শুরু করেন। সরকারের কর রাজস্ব সংগ্রহ করাই তাঁদের  দায়িত্ব।
    ২.ঝামেলামুক্ত কিন্তু আর্থিক স্বাচ্ছন্দে যারা Life lead করতে চান, চাকুরী জীবনের মধ্যে ব্যক্তিগত জীবনকে হারিয়ে খুঁজতে যারা অনিচ্ছুক,  তাদের জন্য এ Cadre ভাল চয়েস হতে পারে।
    ৩.এই ক্যাডারে Promotion Growth সন্তোষজনক। Logistic সুবিধা, যেমন গাড়ি ইত্যাদি পর্যাপ্ত।
    ৪. বেতনভাতার বাইরে বৈধ উপায়ে  বড় অংকের টাকা নিয়মিত আয় করতে চান, আপনার জন্য ট্যাক্স ক্যাডারের বিকল্প নেই।  আয়কর ফাঁকি যদি ধরতে পারেন, সেটার নির্দিষ্ট পার্সেন্টেজ Grant of Rewards পাবেন।
    ৫. Taxation ও Customs দুটো ক্যাডারই NBR’র অধীনে কাজ করলেও ট্যাক্স ক্যাডাররা কাস্টমস ক্যাডারদের তুলনায় NBR এর মেম্বার বেশি হন।

    ………………………………..

    @@@অসুবিধাঃ
    ১.উচ্চবিত্ত সমাজ আপনাকে যথেষ্ঠ সমীহের চোখে দেখলেও Police বা প্রশাসন ক্যাডারের মতো পাওয়ার Practice’র সুযোগ নেই।
    ২.আয়কর রিটার্ন এর সময় খুব ব্যস্ত সময় পার করতে হবে, তখন প্রায়ই নাওয়া খাওয়া ভুলে যাওয়ার মতো অবস্থায় পড়তে হতে পারে।
    ৩.ঢাকার বাইরে Posting এর জন্য মানসিকভাবে প্রস্তুত থাকতে হবে।
    কাজের Soft পরিবেশ,  আর্থিক- অনার্থিক সুযোগ সুবিধা মিলিয়ে এটি সিভিল সার্ভিসের অন্যতম আকর্ষণীয় ক্যাডার হিসেবে পরিগণিত হয়।

    পদক্রমঃ  সহকারী কর কমিশনার >  উপ কর কমিশনার >  যুগ্ম কর কমিশনার >  অতিরিক্ত কর কমিশনার >  কর কমিশনার >  জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সদস্য.

    Worthy Talk BD // worthytalkbd