Thu. Feb 2nd, 2023

    ………………………

    হুছাইন মুহাম্মদ। ৩৮তম বিসিএসে প্রশাসন ক্যাডারে ১২৩ তম হয়ে সুপারিশ*প্রাপ্ত হয়েছেন। তিনি ৩৭তম বিসিএসেও শিক্ষা ক্যাডার হয়ে                     কুষ্টিয়ার মিরপুরের আমলা সরকারি কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের লেকচারার হিসেবে কর্মরত আছেন।
    ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী ছিলেন হুছাইন মুহাম্মদ। তিনি এসএসসি পাশ করেন ঝিনাইদহের হরিনাকুন্ডু ভালকী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এবং এইচএসসি পাশ করেন হাজী আরশাদ আলী ডিগ্রী কলেজ থেকে। তার সফলতার পেছনে                                অনুপ্রেরণা যুগিয়েছেন তার বাবা-মা, স্ত্রী ও পরিবারের অন্য সদস্যরা। এছাড়া তাদের শিক্ষক পরিবার হওয়ায় পড়ালেখার ক্ষেত্রে, বিশেষ করে বড়চাচা ও চাচী সবচেয়ে বেশি অনুপ্রেরণা যুগিয়েছেনে। এছাড়াও তার পথপ্রদর্শক হিসেবে ছিলেন                       তার ছোট চাচা মাগুরার যুগ্ম জেলা জজ শাজাহান আলী এবং সেজো চাচা শিক্ষক জাহাঙ্গীর আলম। বন্ধুর মত সকল বিপদে পাশে থেকেছেন                                   তার চাচাতো ভাই ডা. রাজিবুল ইসলাম, ইঞ্জিনিয়ার আরিফুল ইসলাম ও জাহিদুল ইসলাম।

    …………………………..

    হুছাইন মুহাম্মদ বিভিন্ন সেমিনারে মোটিভেশনাল বক্তা হিসেবে উপস্থিত থাকেন। সফলতার বিষয়ে তিনি বলেন, লক্ষ্য ঠিক রেখে নিয়মিত প্রস্তুতি নিতে হবে                                  এবং সৃজনশীল হতে হবে । বছরের পর বছর পড়তে হবে না। বিগত বছরের প্রশ্ন সম্পর্কে ধারণা থাকতে হবে। পড়াশোনার চাপ অনেকটা কমে আসবে যদি বিগত বছরের প্রশ্ন নিয়ে                                  ভালো ধারণা থাকে । এছাড়া Brain Storming একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। আপনি যে বিষয়টিকে পছন্দ করেন বা কোন Sector এ Job করতে চান সেটাকে আগে ঠিক করতে হবে। একই সঙ্গে সেই Sector’র নিয়োগ পরীক্ষায়                                   বিগত বছরে কেমন ধরণের প্রশ্ন এসেছে সেটাও গুরুত্বপূর্ণ।

    তিনি বলেন, অনেকেই আছেন বছরের পর বছর শুধু পড়েই যাচ্ছেন। কিন্তু তাদের নির্দিষ্ট                              কোন লক্ষ্য নেই যে, আমি কি পড়ছি, কেন পড়ছি। কোন বিষয় থেকে বেশি প্রশ্ন আসে আর কোন বিষয় থেকে আসেনা সে সম্পর্কে তাদের কোন ধারণা নেই। আমি নিজে বিগত বছরের প্রশ্ন নিয়ে                                       গবেষণা করতে করতে এমন ধারণা চলে আসছিল যে, কোন বিষয়ে প্রশ্ন আসতে পারে আর কোন বিষয়ে না।
    বিভিন্ন সেক্টরের চাকরির পরীক্ষায় বিভিন্ন ধরণের প্রশ্ন আসে। সব পরীক্ষায় একই ধরণের প্রশ্ন আসে না। সুতরাং নিজেকে সেভাবেই প্রস্তুত করতে হবে বলে জানান হুছাইন মুহাম্মদ।

    ………………………….

    হুছাইন জানান, পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ছাড়াও দেশের অনেক কলেজ থেকে                     অনেকেই ক্যাডার সহ বিভিন্ন ক্যাডার হয়েছেন। এটা প্রমাণ করে চেষ্টা করলে অনেক কিছুই সম্ভব।
    @ সংগৃহীত ও পরিমার্জিত।