Wed. Jan 25th, 2023

    …………………………

    ষাটোর্ধ্ব সফিয়া খাতুনের সঙ্গে পাশের বাড়ির বিরোধ জায়গা নিয়ে। বিধবা নারীর একখণ্ড জমি দখলে নিতে নানাভাবে নির্যাতন চলতো নিয়মিত। পুলিশ-এলাকাবাসীর কাছে অভিযোগ দিলেও দীর্ঘদিন ধরে মিলেনি সমাধান।  কিছুদিন আগে লোকমুখে তিনি শুনেছেন এলাকায় একজন ভালো পুলিশ কর্মকর্তা এসেছেন। স্থানীয় এক ব্যক্তির পরামর্শে কোনোমতে ওই পুলিশ কর্মকর্তার কাছে পৌঁছান। বলেন সমস্যার কথা।

    ভুক্তভোগী বিধবা নারীর সমস্যা শুনে সমাধানের উদ্যোগ নেন ওই পুলিশ কর্মকর্তা। তার সরাসরি আইনি পদক্ষেপে কয়েকদিনেই সমাধান হয় নারীর সমস্যা।   ঘটনাটি চট্টগ্রামের সাতকানিয়া উপজেলায়। শুধু এটি নয়। এমন অনেক অভিযোগ নিজের তত্ত্বাবধানে আইনি প্রক্রিয়ায় সমাধান করছেন সাতকানিয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এএসপি) জাকারিয়া রহমান জিকু।

    …………………………

    তার আওতাধীন থানা রয়েছে দুটি। একটি সাতকানিয়া এবং অপরটি লোহাগাড়া। সম্প্রতি আইনি সেবা প্রদান, মাদক উদ্ধার, অপরাধ দমন এবং জটিল মামলার রহস্য উন্মোচনসহ নানা সফলতায় তার মাথায় ওঠেছে শ্রেষ্ঠ জেলা সার্কেল এএসপির মুকুট।     বৃহস্পতিবার (৯ সেপ্টেম্বর) পুরস্কারটি তোলে দেন চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার এসএম রশিদুল হক।  পুরস্কার পাওয়ার পর অনুভূতি জানতে চাইলে জাকারিয়া জিকু জাগো নিউজকে বলেন, জনগণের টাকায় আমার চাকরি।

    জনগণকে সেবা দেওয়া আমার দায়িত্ব ও কর্তব্য। আমি সেই দায়িত্ব পালন করার চেষ্টা করি। এ ধরনের পুরস্কারে কাজের প্রতি স্পৃহা আরও কয়েকগুণে বেড়ে যায়। আমি ধন্যবাদ জানাই আমার দুই থানার পুলিশ কর্মকর্তাদের। তাদের সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় এ অর্জন।    এ দিকে এলাকার ঊর্ধ্বতন এ পুলিশ কর্মকর্তার এমন অর্জনে খুশি সাতকানিয়া-লোহাগাড়ার অনেকেই। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে জানাচ্ছেন শুভেচ্ছা।   রিয়াদ হোসেন নামে একজন লেখেন, পুলিশের বিচারে নয়, এলাকাবাসীর বিচারেও আপনি শ্রেষ্ঠ এএসপি। আপনি আসার পর এলাকার আইনশৃঙ্খলা উন্নতি হয়েছে। আশা এ সফলতার ধারাবাহিকতা থাকবে।

    …………………………

    অভিনন্দন জানানোর পাশাপাশি নুরুল হোসেন নামে একজন লেখেন, আপনি তো আমাদের এলাকার হয়ে গেছেন।   খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজি সাহিত্যে পড়াশোনা করা জাকারিয়া ৩০তম বিসিএস পুলিশ ক্যাডারে যোগ দেন। অবশ্য এর আগে অর্থাৎ ২৯তম বিসিএসে তিনি প্রশাসন ক্যাডারে ছিলেন। পিতা-মাতার ইচ্ছায় প্রশাসন ক্যাডার ছেড়ে পরের বারে পুলিশ ক্যাডারে যোগ দেন। তার গ্রামের বাড়ি ঝিনাইদহের শৈলকূপা এলাকায়।
    তথ্যসূত্রঃ জাগো নিউজ ২৪ ডটকম( ১০ সেপ্টেম্বর ২০২১)